বাংলাদেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন

বাংলাদেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্প ৬ টি আদিপেশা যেমন: কামার, কুমার, নাপিত, মুচি, বাশঁ-বেত পণ্য প্রস্তুতকারী ও কাঁসা-পিতল পণ্য প্রস্তুতকারীদের নিয়ে কাজ করে। এই প্রকল্পের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হলো প্রান্তিক পেশাজীবী গোষ্ঠীর জনগণের সাংবিধানিক অধিকার নিশ্চিত করা। উপযুক্ত প্রশিক্ষণ ও আয়বর্ধক কাজে অন্তর্ভুক্তকরণের মাধ্যমে বেকারত্ব দূর করা। উপযুক্ত প্রশিক্ষণ ও আয়বর্ধক কাজের মাধ্যমে দক্ষ জনশক্তি ও তাদের পণ্য রপ্তানি করা । প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের মাধ্যমে সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় নিয়ে আসা। অর্থনৈতিক সম্পৃক্তির মাধ্যমে সামাজিক মর্যাদা বৃদ্ধি করা এবং পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীকে উন্নয়নের স্রোতধারায় সম্পৃক্তকরণ। তাদের পেশার টেকসই উন্নয়নের জন্য দক্ষতা বৃদ্ধিমূলক প্রশিক্ষণ প্রদান। এই প্রকল্পের আওতায় দুই ধরণের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়ঃ ১। সফটস্কিলস (উদ্যোক্তা প্রশিক্ষণ) ২। এপ্রেন্টেসসীপ প্রশিক্ষণ। সংশোধিত প্রকল্প দলিল অনুযায়ী প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর ২৩৩৪৩ জনকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। ইতোমধ্যে জানুয়ারি ২০২০ পর্যন্ত ২০ টি জেলার ১০২ টি উপজেলা/পৌরসভা ১৭২২৩ জনের প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করা হয়েছে।

নোটিশ বোর্ড

শিরোনাম প্রকাশের তারিখ
Ajker Notice Feb 12 2020 12:00AM
সকল নোটিশ

হালনাগাদ প্রতিবেদন

পেশা পুরুষ মহিলা হিজড়া মোট
(১)কামার 3 0 0 3
(১১)অন্যান্য (নির্দিষ্ট করুন) 1 0 0 1
(২)কুমার 1 0 0 1
(৩)নাপিত 1 0 0 1
(৪)বাঁশ ও বেত পণ্য প্রস্তুতকারী 2 0 0 2
(৭)লোকজ যন্ত্র 1 0 0 1
মোট 9 0 0 9